1. admin@deshomanusherbarta24.xyz : admin :
সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ১১:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জটিল কঠিন রোগের সুচিকিৎসা পেতে এখনি এসে পড়ুন কবিরাজ মোল্লা আসাদুজ্জামান রিপন এর কাছে ৪৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি মোঃ তুহিন মিয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন-হারুনর রশীদ মুন্না ১৫ই আগস্ট: ইতিহাসের অন্ধকারতম অধ্যায়-মোঃ আব্দুল মালেক মুন্সি ১৫ ই আগস্ট এর সেইদিন জাতির জন্য ছিল এক কালো অধ্যায়-আব্দুল খালেক মুন্সি ১৫ই আগস্ট বৃষ্টিঝরা শ্রাবণের অন্তিম দিনে সেদিন বৃষ্টি ঝরেনি, ঝরেছিল দেশপ্রেমিকের রক্ত- হারুনর রশীদ মুন্না সর্বসম্মতিক্রমে দ্বিতীয় প্রান্তিক পাস সকল পরিচালকের উপস্থিতিতে সাউথইস্ট ব্যাংকের বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত এমপি শামীম ওসমানের সহধর্মিনী সালমা ওসমান লিপির সুস্থতা কামনায় দোয়া চাইলেন-চেয়ারম্যান, আলহাজ্ব শওকত আলী এমপি শামীম ওসমানের সহধর্মিনী সালমা ওসমান লিপির সুস্থতা কামনায় দোয়া চাইলেন- মোঃ আনোয়ার হোসেন এমপি শামীম ওসমানের সহধর্মিনী সালমা ওসমান লিপির সুস্থতা কামনায় দোয়া চাইলেন-মেম্বার মোঃ আলাউদ্দিন হাওলাদার এমপি শামীম ওসমানের সহধর্মিনী সালমা ওসমান লিপির সুস্থতা কামনায় দোয়া চাইলেন-মোঃ আব্দুল মালেক মুন্সি

আমার বিরুদ্ধে প্রচারিত সংবাদ পাগলের প্রলাপ বাক্যের মত চিরন্তন মিথ্যা-মেম্বার হাজী রোকন

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৯ জুন, ২০২১
  • ৬০ Time View

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ ৬ নং ওয়ার্ড মেম্বার হাজী রোকন উদ্দিন জনগণের কাছে উন্নয়নের রূপকার হিসেবে পরিচিত।

তার পরিবার বিভিন্ন সময়ে রাজনীতিসহ জনসেবায় বিশাল ভূমিকা রেখে আসছে। তার বাবা মতিউর রহমান ওরফে মালু চেয়ারম্যান একাধিকবার সুনামের সাথে এনায়েতনগর ইউনিয়নের নেতৃত্ব দিয়েছে। তার জেঠাতো ভাই আসাদুজ্জামান বর্তমানে এনায়েতনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে অধিষ্ঠিত রয়েছে। তার বড় ভাই হেলু মেম্বার কুতুবপুর ইউনিয়নের মেম্বার ছিলেন এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সদস্যপদে নেতৃত্ব দিয়েছেন এবং আরেক বড় ভাই হাজী জসীম উদ্দিন কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি হওয়া সত্বেও ভাড়া বাসায় থাকে।

কয়েকদিন ধরে মেম্বার রোকনের সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য এক শ্রেণীর স্বার্থান্বেষী মহল মনগড়া গল্পকে বাস্তবে রূপ দেওয়ার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে মনে করেন মেম্বার রোকন। এ সময় তিনি বলেন, আমি দীর্ঘ ১৮ বছর প্রবাস জীবনে অনেক পরিশ্রম করে দেশের একজন রেমিটেন্স যোদ্ধা হিসাবে অর্থনীতিতে অবদান রেখেছি। যখনি দেশে আসার চেষ্টা করেছি আমাকে ফাঁদে ফেলানোর চেষ্টা করা হয়েছে। বিনা অপরাধে মেছের হত্যার মামলায় জড়ানো হয়েছে। অথচ মেছের ছিল আমার একজন খুব কাছের বন্ধু।মেছের তার রক্তের ভাই হক সাহেবের সাথে যতটুকু সময় এক বিছানায় ঘুমায়নি তারচেয়েও বেশী সময় আমার সাথে একসাথে ঘুমিয়ে ছিল। এখন মেছেরের পরিবার ভুল বুঝতে পারায় সেই পরিবারের সকল সদস্যের সাথে আমার চমৎকার সম্পর্ক তৈরী হয়েছে। সুতরাং এ সকল অতীত ঘেটে উক্ত পরিবারের সাথে আমার সুসম্পর্ক নষ্ট করা পায়তারা চালাচ্ছে একটি মহল যা কোনদিনও সম্ভব নয়। মেছেরের ভাই হক সাহেবের সাথে আমার খুব ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক। যে বা যাহারা সে সম্পর্ক নষ্ট করতে চায় তাদের উদ্দেশ্যে বলছি, সময় থাকতে সাবধান হোন, নিজের চকরায় তেল দেন। সাধু সন্ন্যাসী কে তা সবাই জানে।

আমি নির্বাচিত হবার আগে বা পরে আমার ফতুল্লা থানায় কোন মামলা নেই। আর ত্রাণের টিন ও চাল আমি যদি চুরি করতাম তাহলে এতদিন কেন কোনও নিউজ আসলো না। করোনার সময় নিজের পরিবারসহ আক্রান্ত হয়েছি তবুও বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাঠানো খাদ্য সামগ্রী উপহার জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে পিছপা হই নাই।

কেউ আমার সম্পর্কে বিভ্রান্তি মুলক কোন প্রমান দিতে পারবে না। আমার বিরুদ্ধে প্রচারিত সংবাদ পাগলের প্রলাপ বাক্যের মত চিরন্তন মিথ্যা।

তিনি আরো বলেন, কোন পুকুরের পানির নীচে ফেনসিডিল মজুত রেখে আমি মাদকের ব্যবসা করেছি তা আমার জানার অনেক ইচ্ছা। আমি একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী এবং সফল জনপ্রতিনিধি। মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ায় এবং অনেক চেষ্টা করেও কোন নির্বাচনে আমাকে পরাজিত করতে ব্যর্থ হয়ে একটি চক্র আমার বিরুদ্ধে কল্পকাহিনী সাজিয়ে সাংবাদিকদের বিভ্রান্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু কোন লাভ হবে না, আমার ওয়ার্ডের জনগন ভোটাররা আমাকে বিশ্বাস করে এবং আমার কর্মকান্ডে সন্তুষ্ট হয়ে আগামীতে আবারো নির্বাচিত করে চক্রান্তকারীদের এ সকল অপপ্রচারের দাতভাঙ্গা জবাব দেবে ইনশাআল্লাহ। বাচ্চুকে আমি কোনদিনই আমার প্রতিদ্বন্ধি কিংবা প্রতিপক্ষ মনে করি না। ও আমার ছোট ভাইয়ের মতো। সামনে আসন্ন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জনগণের ভালোবাসায় অবশ্যই পুনরায় নির্বাচিত হব। আমার পরিবারের প্রায় সকল সদস্যই আওয়ামীলীগ সমর্থিত এবং বঙ্গবন্ধুর সৈনিক। আমিও স্থানীয় এমপি একেএম শামীম ওসমানের আহবানেই আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে অংশ নিয়েছি। সুতরাং কোনও চক্র পাগলের গল্প সাজিয়ে তা প্রচার করে জনগনের কাছ থেকে দুরে সরিয়ে রাখতে পারবে না। এ সকল গল্প কুতুবপুরের জনগনের কাছে হাস্যকর হিসাবে উপস্থাপিত হচ্ছে।

সর্বশেষে তিনি বলেন, এ সকল অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। সাংবাদিক ভাইয়েরা একটু খোঁজ নিয়ে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করলে আমাদের মত জনসেবায় যারা অংশ নিচ্ছেন তারা উৎসাহিত হবে। নয়তো দুস্কৃতিকারী ও দুর্নীতিবাজেরা সমাজে ঘাটি গেড়ে বসবে। যার ফলে জনসাধারন কল্যানমূলক সেবা থেকে বঞ্চিত হবে, যা কোনদিনও কাম্য নয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© দেশ ও মানুষের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত ©
নির্মাণ করেছেন WooHostBD
Theme Customized BY WooHostBD