1. admin@deshomanusherbarta24.xyz : admin :
রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ১১:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার ১২ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি জানালেন-হারুনর রশীদ মুন্না জাজিরা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও শ্রমিক সমবায় সমিতির জমাকৃত টাকা সদস্যদের হাতে তুলে দিলাম-মেম্বার মোঃ রফিকুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ৪৫০/- টাকা প্রদান করেন চেয়ারম্যান মোঃ তোফায়েল আহমেদ আলমাছ দুই স্পটে ৯০০ পরিবারের মাঝে রিপনের ঈদ উপহার বিতরণ আদর্শনগর এর সর্বস্তরের জনগণকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন-মোঃ রুস্তম আলী শেখ কুতুবপুরের সর্বস্তরের জনগণকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন-হাজী মোঃ ফজলুর রহমান মাদবর দেশ-বিদেশের সর্বস্তরের জনগণকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন-মোঃ মনির হোসেন বগুড়া সাংবাদিক রনির উপর দুষ্কৃতিকারীদের হামলা ঢাকা-৫ আসনের সর্বস্তরের জনগণকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন-বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী মনিরুল ইসলাম মনু এমপি ৬ নং ওয়ার্ড বারিপাড়া রাস্তার শুভ কাজের শুভ উদ্ভধন করেন-চেয়ারম্যান হাজী তোফায়েল আহমেদ আলমাছ

রাজিবপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদে ডিজিটাল সেন্টার সেবা নিতে দিতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা, ভোগান্তির শিকার বহু মানুষ

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৪১ Time View

 

রাজিবপুর উপজেলা প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রাম জেলার রাজিবপুর উপজেলার ১নং ইউনিয়ন পরিষদে ডিজিটাল সেবা নিতে গিয়ে হয়রানি শিকার হচ্ছে রাজিবপুর সদর ইউনিয়নবাসি । ২০২১ সালের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি করাতে জন্ম নিবন্ধন প্রয়োজন । তাই ইউনিয়ন পরিষদে ডিজিটাল সেন্টারে জন্মনিবন্ধন করতে অনেকেই ভিড় করছে ।

এই সুবাদে রাজিবপুর সদর ইউনিয়নের ডিজিটার সেন্টারে কর্মরত মোঃ শফিকুল ইসলাম বিভিন্ন ভাবে অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে । কারও কাছে ১০০, কারও কাছে ১৫০, আবার কারও কাছে ২০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে।

এছাড়াও ১৮ নিচে যারা নিবন্ধন করতে আসে তাদেরকে তার বাবা মায়ের ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন চাওয়া হচ্ছে । এ বিষয়ে তার কাছে নোটিশ জানতে চাইলে তিনি বলেন, “নোটিশ আমি কতজনকে দেখাবো আর নোটিশ টাঙিয়ে দিলে কেউ দেখে না।” বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে বলে, “এখন নেই ।”
শুধু এখন এর আগেও ২০১৯ সালে তখন ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময় তখনও তিনি জন্ম মৃত্যু প্রাপ্তি রশিদে ৫০ টাকা উল্লেখ করেন কিন্তু রায়হানুল ইসলাম, নামের এক ব্যক্তির কাছে ১৫০ নিয়ে ছিলেন । শুধু রায়হান না এভাবে শত শত মানুষের কাছে অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন । ভুক্তভোগী জাউনিয়ার চর, মোছাঃ শিরিনা বেগম, তিনি সাংবাদিকদের জানান, “ আমি আমার ছেলের জন্ম নিবন্ধন করতে ডিজিটাল সেন্টারে শফিকুল এর কাছে গেলে তিনি আমার স্বামী ,শ্বশুর, শাশুড়ি সহ আমার পিতা মাতার আইডি কার্ড দিয়ে আমার আর আমার স্বামীর ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন করতে বলে, সেই সাথে জন্ম নিবন্ধন ফি জন প্রতি ২০০ টাকা করে চাওয়া হয় । ২০০ টাকা না দিলে কারও জন্ম সনদ দেওয়া হবে না এবং ১০০ টাকাসহ ভোটার আইডি কার্ড যারা জমা দিয়েছিল তাদের কে টাকা আইডি কার্ড এর কাগজ ফেরৎ দেওয়া হবে । ”

প্রত্যেক প্রাইমারি স্কুলের ১৬ ই জানুয়ারির মধ্যে জন্ম সনদ চাওয়া হয়েছে । আর এই সুযোগ টাই কাজে লাগাচ্ছে রাজিবপুর সদর ইউনিয়নের ডিজিটার সেন্টারে কর্মরত মোঃ শফিকুল ইসলাম ।

অতিরিক্ত টাকা নেওয়া হচ্ছে এ বিষয়ে ১ং সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ কামরুল ইসলাম এর কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, “আমরা ৫০ টাকা ফি নির্ধারণ করে দিয়েছি, যদি কারও কাছে অতিরিক্ত টাকা নেওয়া হয় এবং সেই বিষয়ে অভিযোগ করে তাহলে আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।”

ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে কর্মরত মোঃ শফিকুল ইসলাম কে বেশ কয়েকবার ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করলে তাকে পাওয়া যায়নি ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© দেশ ও মানুষের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত ©
নির্মাণ করেছেন WooHostBD
Theme Customized BY WooHostBD