1. admin@deshomanusherbarta24.xyz : admin :
বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ১২:৩১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
মনু মুন্নার উদ্যোগে ১৫ ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসের বিশেষ প্রস্তুুতি সভা অনুষ্ঠিত শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ কুতুবপুরের সভাপতি আবিরের বিভিন্ন এলাকায় জন্মদিন পালন ও দোয়া অনুষ্ঠিত মুড়াপাড়া ইউ‌নিয়ন ৮ নং ওয়ার্ডে করোনা দুর্যোগ গ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করোনার কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন ২য় ডোজের টিকা নিলেন- করোনা যোদ্ধা মোঃ আব্দুল মালেক মুন্সি বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ-চেয়ারম্যান, তোফায়েল আহমেদ আলমাছ শেখ রাসেল জাতীয় শিশু ও কিশোর পরিষদ নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার পক্ষ থেকে করোনা টিকা নিবন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত জটিল কঠিন রোগের সুচিকিৎসা পেতে এখনি এসে পড়ুন কবিরাজ মোল্লা আসাদুজ্জামান রিপন এর কাছে ৪৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি মোঃ তুহিন মিয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন-হারুনর রশীদ মুন্না ১৫ই আগস্ট: ইতিহাসের অন্ধকারতম অধ্যায়-মোঃ আব্দুল মালেক মুন্সি ১৫ ই আগস্ট এর সেইদিন জাতির জন্য ছিল এক কালো অধ্যায়-আব্দুল খালেক মুন্সি

মহান বিজয় দিবসে সকল শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা ও বিজয়ের শুভেচ্ছা জানালেন- মোঃ আব্দুল খালেক মুন্সি এবং মোঃ জিয়াউর রহমান

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৩১ Time View
রাহাদ হোসেনঃ ১৭৫৭ সালে পলাশীর আম্রকাননে স্বাধীনতার যে সূর্য অস্তমিত হয়েছিল সেটির উদয় ঘটে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর। বিজয়ের মহামুহূর্তটি সূচিত হয়েছিল আজকের এই দিনে। ৯১ হাজার ৫৪৯ পাকিস্তানি সৈন্য প্রকাশ্যে আত্মসমর্পণ করেছিল। ঢাকার ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ডের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট জেনারেল আমির আব্দুল্লাহ খান নিয়াজী মিত্র বাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ডের সর্বাধিনায়ক লেফটেন্যান্ট জেনারেল জগজিত্ সিং অরোরার কাছে আত্মসমর্পণের দলিলে স্বাক্ষর করেছিলেন। দেনদরবার নয়, কারও দয়ার দানে নয়, এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বিজয়ের পর নত মস্তকে পাকিস্তানি বাহিনী পরাজয় মেনে নেয়। পৃথিবীতে নতুন একটি রাষ্ট্র হিসেবে স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয় ঘটে। আর এই বিজয়ের মহানায়ক হিসাবে যিনি ইতিহাসে চির অম্লান ও ভাস্বর হয়ে আছেন তিনি হলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
মুন্সিবাগ দারুল কালর ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার পক্ষ থেকে প্রিন্সিপাল মোঃ জিয়াউর রহমান এবং মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি মোঃ আব্দুল খালেক মুন্সি মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে স্বাধীনতা যুদ্ধে সকল শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। পাশাপাশি মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানালেন মাদ্রাসা কমিটির সকলকে সহ মাদ্রাসা টির শিক্ষক শিক্ষার্থী এবং অভিভাবককে।
মহান বিজয় দিবস সম্পর্কে প্রতিবেদককে কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক এবং মাদ্রাসাটির গভর্নিং বডির সভাপতি মোঃ আব্দুল খালেক মুন্সি বলেন, আমার বাবা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। মহান বিজয় দিবসের সময় স্বাধীনতা যুদ্ধ করে  বিজয় ছিনিয়ে এনেছে। তাই বিজয়ের এ মাসে একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটুক্তি এবং ভাস্কর্য ভাঙার যারা দৃষ্টতা দেখায় তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান এবং মাদ্রাসাটির সকলকে ও কুতুবপুর বাসিকে মহান বিজয়ের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন রইলো আমার পক্ষ থেকে।
এসময় প্রতিবেদককে প্রিন্সিপাল মোঃ জিয়াউর রহমান বলেন, দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধের পর বাংলাদেশের বুকে লাল সবুজের পতাকার বিজয় এনে দিয়েছিলেন স্বাধীনতার ঘোষক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। স্বাধীনতা যুদ্ধের ইতিহাস সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের জানার আগ্রহ আরো বৃদ্ধি করতে হবে। দেশ এখন করোনা দুর্যোগের দ্বিতীয় স্টেজ এ আছে। তাই এই মহান বিজয় দিবসের সময় শুধু একটি কথা বলতে চাই সবাই মাস্ক পড়ে ঘরের বাহিরে যাবেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© দেশ ও মানুষের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত ©
নির্মাণ করেছেন WooHostBD
Theme Customized BY WooHostBD